দিল্লী: ইমাম মুয়াজ্জিনরা মাসিক বেতন পেলেও বঞ্চিত পুরোহিতরা, প্রতিবাদে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ

দিল্লীর আম আদমি পার্টির সরকারের বঞ্চনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নামলেন দিল্লীর হিন্দু পুরোহিতরা। পুরোহিতদের একটাই দাবি, ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের যেভাবে মাসিক বেতন দিচ্ছে দিল্লী সরকার, সেভাবে হিন্দু পুরোহিতদেরও মাসিক বেতন দেওয়া হোক। আর এই দাবি আদায়ে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাড়ির সামনে বিক্ষোভে সামিল হলেন তাঁরা।

গত ৭ই ফেব্রুয়ারি অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাড়ির সামনে জড়ো হন বিশাল সংখ্যক পুরোহিত। হাতে গেরুয়া পতাকা এবং দাবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তাঁরা। শুরু হয় হনুমান চলিসা পাঠ। তাতে সুর মেলান বিক্ষোভরত পুরোহিতরা। খবর অনুযায়ী, সেই বিক্ষোভে দিল্লী বিজেপির অনেক কর্মী সমর্থকও যোগ দেন।

বিক্ষোভরত এক পুরোহিত বলেন, ‘আমরা সরকারকে বলতে চাই যে এটাই সমস্ত পুরোহিতদের আওয়াজ। ২০২৪-এর নির্বাচনের আগে পর্যন্ত এই আওয়াজ আরও শক্তিশালী হবে। আমাদের দাবি মেনে না নিলে আগামীদিনে আন্দোলন চলতে থাকবে।’

এর আগেও বিক্ষোভে সামিল হয়েছিল পুরোহিতরা। সেই সময়েও বিক্ষোভে ছিলেন বিজেপির নেতারা। সেই সময়ে বিক্ষোভরত পুরোহিতদের সঙ্গে থাকা বিজেপি সাংসদ রমেশ বিধুরি বলেছিলেন, “মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনরা যদি প্রতি মাসে বেতন পেতে পারেন, তবে মন্দিরের পুরোহিতরা কেনো মাসিক বেতন পাবেন না। সরকারের পুরোহিতদের বিষয়ে উদাসীনতা দেখে এটা স্পষ্ট যে সরকার পুরোহিতদের প্রতি বৈষম্য করছে।”

উল্লেখ্য, দিল্লীর আম আদমি পার্টির সরকার ওয়াকফ বোর্ডে নথিভুক্ত মসজিদগুলির ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের প্রতি মাসে বেতন দিয়ে থাকে। ঘোষণা অনুযায়ী, একজন ইমাম প্রতিমাসে ₹১৮,০০০ টাকা এবং একজন মুয়াজ্জিন প্রতি মাসে ₹১৪,০০০ টাকা করে বেতন পেয়ে থাকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Sorry! Content is protected !!