লাদাখ: সরকারি চাকরি পেতে আর বাধ্যতামূলক নয় উর্দু, পদক্ষেপ প্রশাসনের

0
24

সরকারি চাকরি পেতে স্নাতক ডিগ্রির সঙ্গে উর্দু জানা বাধ্যতামূলক ছিল। এবার সেই নিয়ম বাতিল করলো লাদাখ প্রসাশন। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা এই নিয়ম বাতিল হওয়ায় খুশি লাদাখের আম জনতা।

উল্লেখ্য, লাদাখের মানুষের প্রধান ভাষা ‛বোটি’। উর্দু কেউ জানেন না বললেই চলে। কিন্তু পূর্বের জম্মু-কাশ্মীরের সরকার লাদাখের মানুষের ওপরে উর্দু ভাষা চাপিয়ে দিয়েছিল, এমন অভিযোগ তুলেছিলেন লাদাখের সাংসদ জামিয়াং শেরিং নামগিয়াল।

তারপরই লাদাখের রাজস্ব বিভাগের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয় যে এই বিভাগে চাকরির জন্য আর উর্দু জানা বাধ্যতামূলক নয়। এও জানানো হয়েছে যে নায়েব তহসিলদার, গিরিদ্বার কুয়াঙ্গু, পাটোয়ারী ইত্যাদি পদের জন্য উর্দু ভাষা আর বাধ্যতামূলক নয়।

উর্দু বাতিলের এমন সিদ্ধান্তের পরই নিজের আনন্দ প্রকাশ করেছেন সাংসদ জামিয়াং। তিনি বলেন, ধারা ৩৭০ বাতিলের পর উর্দু বাতিল করার সিদ্ধান্ত লাদাখের প্রশাসনিক ক্ষেত্রে একটি বড়সড় পদক্ষেপ। তিনি বলেন, ‛উর্দু বহিরাগত ভাষা। পূর্বের জম্মু-কাশ্মীরের শাসকরা লাদাখের মানুষের উপরে জোর করে উর্দু চাপিয়ে দিয়েছিল।’

গত বছরের ২৩শে জানুয়ারি সরকারি চাকরিতে উর্দু বাধ্যতামূলক থাকার নিয়ম বাতিল করার দাবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-কে চিঠি লিখেছিলেন লাদাখের সাংসদ জামিয়াং। ফলে এমন সিদ্ধান্তের পর অমিত শাহ-কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। লাদাখের সাংসদ বলেন, ‛লাদাখের কেউই উর্দু বলেন না। কোনও জাতি, উপজাতির মাতৃভাষা উর্দু নয়। এমনকি এখানকার মুসলিমরাও উর্দু ভাষায় কথা বলেন না।’

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.