কোচবিহার: বাংলাদেশি গরু পাচারকারীকে ধরে পুলিশের হাতে দিলো গ্রামবাসীরা

0
35

এক বাংলাদেশি গরু পাচারকারীকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন গ্রামবাসীরা। ঘটনা কোচবিহার জেলার মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের।

জানা গিয়েছে, গত সোমবার সকালে শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সাতগ্রাম মানাবাড়ি সীমান্ত এলাকায় কয়েকজন গরু পাচারকারীকে তাড়া করেন গ্রামবাসীরা। কয়েকজন পাচারকারী বাংলাদেশে পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও একজনকে ধরে ফেলেন তাঁরা। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

ওই বাংলাদেশি গরু পাচারকারীর নাম আবু হানিফ। তাঁর বাড়ি বাংলাদেশের লালমনিরহাট এলাকায়। তাঁর সঙ্গে এ দেশের কারা কারা জড়িত, তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, Pশীত বাড়তেই বেড়েছে কুয়াশা। আর তার সুযোগ নিয়েই উত্তরবঙ্গের কোচবিহার জেলার একাধিক সীমান্ত এলাকায় সক্রিয় গরু পাচার চক্র। বিএসএফ সজাগ থাকলেও ঘন কুয়াশার সুযোগ নিচ্ছে পাচারকারীরা। আর বাংলাদেশি পাচারকারীদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে এদেশের পাচারকারীরা। আর তার ফল ভুগছে সীমান্ত এলাকার চাষীরা।

স্থানীয় চাষীরা বলছেন, ভোর রাতে ঘন কুয়াশার সুযোগ নিয়ে গরু পাচার চলে। পাচারকারীরা চাষের জমির উপর দিয়ে গরুকে হাঁটিয়ে নিয়ে যায়। তাঁরা আলু ও তামাক খেতের উপর দিয়েই গরু হাঁটিয়ে নিয়ে যায়। আর তাতে আমাদের প্রচুর ক্ষতি হয়। তাই আমরা অনেকেই নিজেদের চাষের জমি পাহারা দিচ্ছি। তাদের অভিযোগ, স্থানীয় কিছু মানুষ গরু পাচারে জড়িত। তাঁরাই বাংলাদেশিদের সঙ্গে যোগসাজশ করে গরু পাচার চালাচ্ছে। তাদেরও ধরুক পুলিশ, দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.