রাজস্থান: সেনার তথ্য পাকিস্তানে পাচার, গ্রেপ্তার আজহারউদ্দিন, নাবিব খান ও ফাতান খান

0
66

পাকিস্তানের হয়ে চর বৃত্তির অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ ও সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা সংস্থা। তাদেরকে দুটি আলাদা অভিযানে পালি এবং জয়সলমীর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতরা হলো আজহারউদ্দিন মেওয়াট, নাবিব খান ও ফাতান খান। এরা সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় সেনার গতিবিধি পাকিস্তানে পাচার করতো।

জানা গিয়েছে, গত ২৬শে নভেম্বর পালি এলাকার রাস থানার অন্তর্গত সেনা ছাউনির কাছে ঘোরাঘুরি করছিল আজহারউদ্দিন মেওয়াট। সেই সময় সেনাবাহিনীর গোয়েন্দারা তাকে আটক করে। তাঁর কাছে থাকা একটি মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়। সে জানায় যে সে আদতে মধ্যপ্রদেশের রাতলাম জেলার বাসিন্দা। পরে বেওয়ার এলাকায় তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। সেখান থেকে একটি ডায়েরি, একাধিক ম্যাপ, ছবি, গোপন কোড ইত্যাদি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

একই দিনে জয়সলমীরে অভিযান চালিয়ে নাবিব খানকে গ্রেপ্তার করেন রাজস্থান পুলিশের গোয়েন্দারা। নাবিব জেরায় জানায় যে সে ২০১৫ সালে পাকিস্তানে ঘুরতে গিয়েছিল সে। সেখানেই এক আইএসআই এজেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় এবং টাকার বিনিময়ে সে ভারত বিরোধী কাজে লিপ্ত হয়। সেই কাজে জয়সলমীরের সেনা প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের কাছে দোকান খোলে সে। দোকানের কাজ চালানোর ফাঁকে ফাঁকে সে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তথ্য পাকিস্তানে পাঠাতো।

নাবিবকে জেরা করে তাঁর আর এক সঙ্গী ফাতান খানের খোঁজ পান গোয়েন্দারা। ফাতান খান পাকিস্তানের হয়ে চরবৃত্তি করার লক্ষ্যে পোখরানে একটি টায়ার-টিউব সারানোর দোকান খোলে। দোকানের কাজের ফাঁকে সে ভারতীয় সেনার গতিবিধির খবর পাকিস্তানে পাঠাতো। এই তিনজনকে জেরা করে আরও তথ্য জানার চেষ্টা করছেন গোয়েন্দারা।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.