আসাম: অব্যাহত উচ্ছেদ অভিযান, বরসলায় ১ মাসের মধ্যে সরকারি জমি খালি করার নোটিস

0
74

সরকারি জমি কিংবা সংরক্ষিত বনাঞ্চলের জমি দখল করে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা বস্তি উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত আসামে। গরুখুঁটি, লামডিং-এর পর এবার বরসলা। ১ মাসের মধ্যে সরকারি জমি খালি করার নির্দেশ দিলো প্রশাসন। শুধু তাই নয়, বেঁধেও দেওয়া হয়েছে সময়সীমা।

জানা গিয়েছে, বরসলা এলাকার দুটি গ্রামের বিশাল এলাকা জুড়ে সরকারি জমি ছিল। কিন্তু আসামের বিভিন্ন জেলা থেকে তিরিশ-চল্লিশ বছর আগে এসে ওই দুটি গ্রামে বসতি স্থাপন করে বহু মানুষ। নদীর পার্শ্ববর্তী হওয়ায় মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করতেন বহু মানুষ। কিন্তু হিমন্ত সরকারের অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে নেওয়া পদক্ষেপের কারণে ওই জমি এবার দখল মুক্ত হতে চলেছে।

সরকারি জমি দখল করে বস্তি গড়ে তোলা মানুষজনরা যথারীতি সরকারি নোটিসের বিরোধিতা করছেন। তাঁরা বলছেন যে এতদিন আমরা এখানে রয়েছি। সেই সঙ্গে তাঁরা এমনটাও বলছেন যে আমরা কেউ অনুপ্রবেশকারী নই। তবে ওই দুটি গ্রামের বাসিন্দাদের বেশিরভাগই স্বেচ্ছায় এলাকা ছেড়ে চলে যাবেন বলে জানিয়েছেন। তবে সেই ক্ষেত্রে আর একটু বেশি সময় চেয়েছেন তাঁরা।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.