সামনে নির্বাচন, রাতারাতি রামভক্ত সাজলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল

0
70

২০২২ সালে বেশ কয়েকটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনে প্রার্থী দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আর সেই কথা মাথায় রেখে হঠাৎই রামভক্ত হয়ে ওঠার জোর চেস্টা চালিয়ে যাচ্ছেন কেজরিওয়াল।

গতকাল হঠাৎই ঝটিকা সফরে অযোধ্যায় পৌঁছে যান দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দর্শন করেন রাম লালার। শুধু তাই নয়, সরযূ নদীতে আরতিও করেন কেজরিওয়াল। পাশাপাশি, তিনি প্রতিশ্রুতি দেন যে শ্রী রাম মন্দিরনির্মাণ সমাপ্ত হলে ভক্তদের বিনামূল্যে দর্শন করাতে নিয়ে আসবেন। এছাড়াও, হনুমানগড়িতেও ছুটে যান কেজরিওয়াল। শ্রী হনুমানের দর্শন করেন।

তবে নতুন নতুন রামভক্ত হলেও এর আগে কেজরিওয়াল এমনটা ছিলেন না। এর আগে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের মদতেই AAP নেতা শ্রী সঞ্জয় সিংহ শ্রীরাম মন্দির তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের বিরুদ্ধে দুর্নীতির আরোপ করেছিলেন। যদিও পরে সেই অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়।

শ্রী রাম মন্দির নির্মাণের বিরোধিতা কেজরিওয়ালও কম করেননি। এর আগে ২০১৪ সালের মার্চ মাসে এক নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছিলেন যে মসজিদ ধ্বংস করে তৈরি করা মন্দিরে শ্রী রামজি কখনও থাকতে পারেনা। এছাড়াও, শ্রী রাম মন্দির নিয়ে অতীতে একাধিকবার কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছিল তাকে।

তবে নির্বাচন বড়ো বালাই। দিল্লীর আম আদমি পার্টির সরকার মুসলিম তোষণ করলেও অন্য রাজ্যের সমীকরণ সম্পূর্ণ অন্য। তাই হিন্দু ভোটারদের কাছে নিজের ছবি উজ্জ্বল করতেই রাতারাতি রামভক্ত হয়ে উঠলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.