দেবী কালরাত্রি

0
65

© শ্রী সূর্য শেখর হালদার

নবরাত্রির সপ্তমী তিথিতে মা দুর্গার যে স্বরূপের পূজা হয় , তাঁর নাম দেবী কালরাত্রি।
এখানে দেবী কৃষ্ণবর্ণা । আলুলায়িত কেশে তিনি ধাবিত শত্রুর দিকে । তাঁর কণ্ঠে বিদ্যুতের মালিকা । ত্রিনয়নী দেবীর শ্বাস প্রশ্বাসে বেরিয়ে আসে আগুনের হলকা । তাঁর চোখগুলি ব্রহ্মাণ্ডের মতো গোলাকার।
ভীষণদর্শনা দেবী কালরাত্রির বাহন গর্দভ বা গাধা। তিনি চতুর্ভূজা; তাঁর চার হাতে বর ও অভয়মুদ্রা এবং খড়্গ ও লোহার কাঁটা রয়েছে।

দেবী কালরাত্রির রূপ ভয়ংকর হলেও তিনি শুভফলের দেবী। তাঁর অপর নাম শুভঙ্করী। হিন্দুদের বিশ্বাস দেবী কালরাত্রি দুষ্টের দমন করেন, গ্রহের বাধা দূর করেন এবং ভক্তদের আগুন, জল, জন্তুজানোয়ার, শত্রু ও রাত্রির ভয় থেকে মুক্ত করেন।

দেবীর এই রূপই উপাসিত হয় কালিকা রূপে । তাঁকে স্মরণ করলেই দৈত্য, দানব, রাক্ষস, ভূত ও প্রেত পালিয়ে যায়।
দেবী কালরাত্রি যেদিনে পূজিত হন,  শাক্ত শাস্ত্রানুযায়ী, সেই দিন সাধকের মন সহস্রার চক্রে অবস্থান করে। তাঁর জন্য ব্রহ্মাণ্ডের সকল সিদ্ধির দ্বার অবারিত হয়ে যায়। এই চক্রে অবস্থিত সাধকের মন সম্পূর্ণভাবে মাতা কালরাত্রির স্বরূপে অবস্থান করে। তাঁর সাক্ষাৎ পেলে সাধক মহাপুণ্যের ভাগী হন। তাঁর সমস্ত পাপ ও বাধাবিঘ্ন নাশ হয় এবং তিনি অক্ষয় পুণ্যধাম প্রাপ্ত হন।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.