গান্ধী পরিবারের টেম্পল রান: রায়বেরিলির শ্রী হনুমান মন্দিরে পূজা দিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

0
33

সামনেই উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। আর এই নির্বাচনে গত বারের তুলনায় ভালো ফলের আশা করছে কংগ্রেস। আর তাই হিন্দু ভোটারদের মন পেতে শুরু হয়েছে কংগ্রেস নেতা তথা গান্ধী পরিবারের সদস্যদের মন্দিরে দৌড়ানো। রাহুল গান্ধীর বৈষ্ণদেবী দর্শনের পর শ্রী হনুমান মন্দিরে পূজা দিলেন কংগ্রেস মহা সচিব তথা গান্ধী পরিবারের অন্যতম উত্তরাধিকারী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

উত্তর প্রদেশের রায়বেরিলি কংগ্রেসের গড় হিসেবে পরিচিত। এই রায়বেরিলির চুরুয়ার শ্রী হনুমান মন্দিরে গতকাল যান প্রিয়াঙ্কা। মাথায় টিকা লাগানোর পাশাপাশি মন্দিরের পুরোহিতের কাছ থেকেও আশীর্বাদ নেন প্রিয়াঙ্কা। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে লোকসভা নির্বাচনের পূর্বেও এই মন্দিরে পূজা দিয়েই ভোট প্রচার শুরু করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

উল্লেখ্য, গুজরাটের গত বিধানসভা নির্বাচন থেকেই নতুন কৌশল নিয়েছেন কংগ্রেস নেতারা। প্রায় সব মন্দিরেই ছুটছেন রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী থেকে শুরু করে কংগ্রেসের বড় নেতারা। কখনও রাহুল গান্ধী নিজেকে হিন্দু তো কখনও আবার নিজেকে কাশ্মীরি পন্ডিত দাবি করছেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, হিন্দু ভোটারদের মন পেতে এবং নিজেদেরকে হিন্দুদের স্বার্থরক্ষাকারী প্রমান করতেই এমন করছেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা।

তবে উত্তর প্রদেশ নির্বাচনে যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়লাভ যে কংগ্রেসের পক্ষে মোটেই সহজ হবে না, তা মানছেন অনেকে। কারণ আগের তুলনায় রাজ্যে কংগ্রেসের দুর্বল সংগঠন ও যোগী আদিত্যনাথের জনকল্যাণমুখী কর্মসূচি। এই দুইয়ের ঠেলায় কংগ্রেসের এখন শোচনীয় অবস্থা। এমন পরিস্থিতিতে কংগ্রেস সব আসনে প্রার্থী নাও দিতে পারে। সূত্রের খবর, ১০০ আসনকে পাখির চোখ করে ঘুঁটি সাজাচ্ছে কংগ্রেস। একাধিক দলের সঙ্গে জোট করে যোগী আদিত্যনাথকে হারানোর কৌশল রয়েছে কংগ্রেসের। আর তাই হিন্দু।ভোটারদের মন পেতেই গান্ধী পরিবারের এই টেম্পল রান।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.