মুসলিমরা বিজেপিকে ভোট দিয়েছে, এই দাবি শুনলে হাসি পায়: হিমন্ত বিশ্বশর্মা

0
138

মুসলিমরা কখনই বিজেপিকে ভোট দেয়নি। কোনও বুথে একটিও ভোট দেয়নি আমার পক্ষে। তাই যখন কেউ বলে যে মুসলিমরা বিজেপিকে ভোট দিয়েছে, এই দাবি শুনলে আমার হাসি পায়। এমনই মন্তব্য আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা টাইমস নাও চ্যানেলকে একটি সাক্ষাৎকার দেন। সেই সাক্ষাৎকারে মিজোরামের সঙ্গে সীমান্ত সমস্যা, রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, গো মাংস নিষিদ্ধ করা সমেত একাধিক বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেন তিনি।

মিজোরামের সঙ্গে সীমান্ত বিবাদ নিয়ে হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন যে এই বিষয় ঐতিহাসিক এবং আলোচনার মাধ্যমেই এই সমস্যার সমাধান সম্ভব। সেইসঙ্গে হিমন্ত বলেন যে শান্তি প্রক্রিয়া যাতে বিঘ্নিত না হয়, সেই কারণেই আসামের নাগরিকদের মিজোরামে যেতে নিষেধ করা হয়েছিল।

সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় সাংবাদিক হিমন্ত বিশ্বশর্মাকে প্রশ্ন করেন যে মিজোরাম অভিযোগ করেছে যে আসাম অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের মিজোরামে বসতি গড়ে দিতে চাইছে। এই প্রশ্নের জবাব নিজস্ব ঢঙেই দেন হিমন্ত। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন যে অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী মানেই হলো মুসলিম। এদের একজনই আমাকে ভোট দেয়নি। ফলে ওরা কারা? সব বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারী।

তিনি আরও বলেন, ‛আজ কেউ যদি বলে যে মুসলিমরা আমাকে কিংবা সর্বানন্দ সোনোয়ালকে ভোট দিয়েছে, তাহলে সবাই হাসবে। কেননা আমি নির্বাচনী প্রচারে গিয়েই বলে এসেছিলাম যে মুসলিম ভোট আমার দরকার নেই। ফলে মিজোরামের অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই। বিজেপি বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের স্বার্থে কাজ করছে না। আর যদি করতো, তবে যেসব রাজ্যে ক্ষমতায় আছে, সে সব রাজ্যে নির্বাচনে হেরে যেত।’

এর পাশপাশি গরু সংরক্ষণ এবং গো মাংস নিষিদ্ধ নিয়েও তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেন হিমন্ত। মন্দিরের ৫ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে গরুর মাংস বিক্রী নিষিদ্ধ করা নিয়ে হিমন্ত বলেন, ‛এটা ভালো আইন। আরও বেশি করে মন্দির নির্মাণ করা উচিত, যাতে গরুর মাংস খাওয়া কমানো যায়’। সেই সঙ্গে হিমন্ত বলেন যে মহাত্মা গান্ধী গরু রক্ষা করতে চেয়েছিলেন এবং আমি মহাত্মা গান্ধীর অন্ধ ভক্ত। তাই এই আইন নিয়ে আমি গর্বিত।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.