পশ্চিম মেদিনীপুর: ঘাটালের বন্যা দুর্গত মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ হিন্দু সংহতি-র

0
132

কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটালে। যেদিকে চোখ যায় শুধুই জল। ডুবে গিয়েছে ঘর-বাড়ি ও রাস্তাঘাট। বহু মানুষ ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিলেও অনেকেই আটকে পড়েছেন। খাবারের অভাবের পাশপাশি দেখা দিয়েছে পানীয় জলের সংকট। ঠিক এমন পরিস্থিতিতে বন্যা দুর্গত এলাকায় ত্রাণ নিয়ে পৌঁছে গেল ‛হিন্দু সংহতি’(Hindu Samhati)।

সেই সব মানুষের পাশে দাঁড়াতে ঘাটালের দাসপুর থানার অন্তর্গত রাজনগর অঞ্চলের বেশ কয়েকটি গ্রামে গতকাল ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে পৌঁছে যায় হিন্দু সংহতির একটি দল। রাস্তাঘাট জলমগ্ন থাকায় নৌকা নিয়েই ত্রাণ সামগ্রী বিলি করেন হিন্দু সংহতির কর্মীরা। একাধিক গ্রামের মানুষদের হাতে পাউরুটি, চিড়ে, মুড়ি, শুকনো দুধ, চিনি, বিস্কুট ও খাওয়ার জল তুলে দেন সংগঠনের কর্মীরা।

জানা গিয়েছে, সংগঠনটি তাদের ‛সঞ্জীবন’ প্রকল্পের আওতায় বন্যা দুর্গত মানুষদের হাতে সাহায্য পৌঁছে দেয়। দেখা গেল, হিন্দু সংহতির রাজ্য স্তরের কার্যকর্তা শ্রী রজত গাঙ্গুলি এবং পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার প্রমুখ কার্যকর্তা শ্রী প্রসেনজিৎ দাস নৌকায় ঘুরে ঘুরে ত্রাণ সামগ্রী বিলি করলেন।

তবে হিন্দু সংগঠন হলেও দুর্গত ও আর্ত মানুষের সেবায় বরাবরই ঝাঁপিয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে দেবতনু ভট্টাচার্যের নেতৃত্বাধীন ‛হিন্দু সংহতি’-কে। এর আগে আমফান ঝড়ের সময় ঘর হারানো মানুষদের ঘর নির্মাণ করতে আর্থিক সাহায্য করেছিল সংগঠনটি। এছাড়াও, লক ডাউনের সময় অনাহারে থাকা লক্ষাধিক মানুষের মধ্যে চাল-ডাল-সবজি-তেল ইত্যাদি তুলে দিয়েছিল তাঁরা। এছাড়াও রক্ত সংকটে থাকা মুমূর্ষু রোগীদের বাঁচাতে সারা বছরই রক্তদান করে থাকেন হিন্দু সংহতির সদস্যরা। একইভাবে ঘাটালের বন্যা দুর্গত মানুষদের পাশে দাঁড়ালো ‛হিন্দু সংহতি’।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.