সাংসদ কোটার কোটি কোটি টাকা মসজিদ-মাদ্রাসায় দিয়েছি, সমাজবাদী পার্টির নেতা শাহিদ সিদ্দিকীর ভিডিও ভাইরাল

0
175

সমাজবাদী পার্টির নেতা তথা প্রাক্তন রাজ্যসভা সাংসদ শাহিদ সিদ্দিকীর একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে শাহিদ সিদ্দিকীকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে সাংসদ থাকার সময় তিনি কোটি কোটি সরকারি টাকা একাধিক মসজিদ ও মাদ্রাসায় দান করেছেন। আর এই কাজ করে তিনি যে গর্বিত, তার সুর স্পষ্ট ঝরে পড়ছিল তাঁর গলায়।

শাহিদ সিদ্দিকী বিভিন্ন সময়ে একাধিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সমাজবাদী পার্টি ছাড়াও কংগ্রেস ও আরএলডি মতো দলের নেতা ছিলেন। এর পাশাপাশি তিনি ‛নয়ী দুনিয়া’ নামে একটি উর্দু সংবাদপত্রের প্রধান সম্পাদকও বটে।

কয়েকদিন ধরেই এই নেতারই একটি ভিডিও ভাইরাল। সেই ভিডিওতে গর্বের সঙ্গে শাহিদ সিদ্দিকীকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে সাহারানপুরের এমন কোনও মসজিদ ও মাদ্রাসা নেই, যেখানে তিনি সাংসদ কোটার অর্থ দান করেননি।

সিদ্দিকী বলেন, ‛আমার কাছে যত ফান্ড এসেছিল, তার এক এক পয়সা আমি মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল ও কলেজে দিয়েছি। সাহারানপুরে এমন কোনও মাদ্রাসা আপনারা খুঁজে পাবেন না যেখানে আমি টাকা দিই নি। মুজফ্ফরনগর, মাহুমুদিয়াতে আমি ১ কোটি টাকা দিয়েছি। মাওলানা নিসার সাহেবকে আমি কম করে হলেও ১ কোটি টাকা দিয়েছি।’

ভিডিওতে শাহিদ আরও বলেন যে এই টাকার বদলে মসজিদ-মাদ্রাসা থেকে কিছুই নেননি তিনি। তিনি তাঁর এই কাজকে আল্লাহ-র কাছে সমর্পণ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আল্লাহ যখন জিজ্ঞেস করবে, আমি কি করেছি।

প্রসঙ্গত, সাংসদ কোটার অর্থ এভাবে বিশেষ কোনও ধর্ম সম্প্রদায়ের জন্য খরচ করা যায়না। এই অর্থ জনসাধারণের উন্নতির কাজে খরচ করার জন্য বরাদ্দ করা হয়। কিন্তু শাহিদ সিদ্দিকীর মত নেতা যেভাবে সরকারি অর্থ মুসলিম তোষণের জন্য যেভাবে খরচ করেছেন, তা ভারতের গণতন্ত্রের পক্ষে দুর্ভাগ্যজনক, মত নেটিজেনদের।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.