সংখ্যাগুরুদের অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত করলে দেশ দুর্বল হয়, পর্যবেক্ষণ এলাহাবাদ হাইকোর্টের

0
75

এক হিন্দু তরুণীকে ইসলামে ধর্মান্তরণে অভিযুক্ত এক মুসলিম ব্যক্তির জামিনের আবেদনের শুনানিতে গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ করলো এলাহাবাদ হাইকোর্ট। কোর্টের পর্যবেক্ষণ, সংখ্যাগুরু ধর্ম সম্প্রদায়ের মানুষদের অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত করলে দেশ দুর্বল হয়।

জামিনের শুনানিতে হাইকোর্টের বিচারপতি শেখর কুমার যাদব একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেন। বিচারপতি বলেন, ধর্ম হলো জীবন যাপনের পথ। আমরা একাধিক ধর্মের সহাবস্থানে বিশ্বাস করি এবং ভারতীয় সংবিধান সকলকেই ধর্ম পালনের স্বাধীনতা দিয়েছে। কিন্তু লোভ, ভয় কিংবা মৌলবাদী মানসিকতার দ্বারা কাউকে অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত করার কোনও স্থান নেই। সংবিধান অনুযায়ী ভয় কিংবা লোভ দেখিয়ে কাউকে ধর্মান্তরিত করা অন্যায়। এমনকি শুধুমাত্র বিয়ের উদ্দেশ্যে কাউকে ধর্মান্তরিত করা অন্যায়।

বিচারপতি শেখর কুমার যাদব গতকাল ৩১শে জুলাই, শনিবার জাবিদ আনসারী নামে এক ব্যক্তির জামিনের আবেদনের শুনানি করছিলেন। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে সে এক হিন্দু তরুণীকে তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ইসলামে ধর্মান্তরিত করেছে এবং বিয়ে করেছে। ওই হিন্দু তরুণীকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করার পূর্বে জাবিদ আনসারী বিবাহিত ছিল। বিচারপতি জাবিদের জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন এবং একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন।

তবে জাবিদ আনসারী জামিনের পক্ষে যুক্তি দিয়ে বলেন যে ওই তরুণীর ধর্মান্তরণ হয়েছিল Freedom of Religions আইন পাশের পূর্বে। কিন্তু বিচারপতি বলেন যে ধর্মান্তরণ ১৮ই নভেম্বর, ২০২০ তারিখে হয়েছে এবং নিকাহনামায় তারিখ রয়েছে ২৮শে নভেম্বর, ২০২০। এ থেকে এটা স্পষ্ট যে বিবাহের জন্যই ওই তরুণীকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করা হয়েছে। আর তারপরেই জাবিদ আনসারীর জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.