আসাম: পাথারকান্দিতে বন দপ্তরের জমিতে মিঞাদের বস্তি, ভেঙে গুঁড়িয়ে দিলো প্রশাসন

0
42

অবৈধ দখলদারদের কবল থেকে আসামের ভূমি রক্ষা করব- আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার এই ঘোষণার পর থেকেই জোরকদমে চলছে উচ্ছেদ অভিযান। দরং জেলার পর এবার করিমগঞ্জ জেলার পাথারকান্দিতে উচ্ছেদ করা হলো অবৈধ দখলদারদের।

পাথারকান্দির ছলমনা গ্রামে বন দপ্তরের জমি দখল করে বস্তি গড়ে তুলেছিল মিঞা লোকজন। সেই অভিযোগ পাওয়ার পরই আসরে নামে প্রশাসন। বন দপ্তরের কর্তারা অভিযোগ খতিয়ে দেখে নিশ্চিত হয় যে ওই বস্তি অবৈধ। তারপরেই বুল ডোজার নিয়ে ছলমনা গ্রামে পৌঁছে যায় প্রশাসনের কর্তারা। ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় বস্তিটি। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মোট ৩৫টি ঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের ‛মিঞা’ নামেই ডাকে আসামের লোকজন। তাঁরা এমন একটি ভাষায় কথা বলেন, যা না বাংলা, না অসমীয়া।

তবে প্রশাসনের এই পদক্ষেপে মোটেও খুশি নয় আসামের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। তাদের দাবি, ওই পরিবারগুলোকে বিনা নোটিসে উচ্ছেদ করা হয়েছে। তাই অবিলম্বে তাদের পুনর্বাসন দেওয়া হোক। তবে এইসব দাবিকে মোটেও পাত্তা দিচ্ছে না সরকার। অবৈধ দখলদারদের থেকে মুক্ত করা হবে আসামের ভূমি, জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.