বাংলাদেশ: বগুড়ায় মুসলিম হোটেলে যাওয়া তরুণীর খাবারে মিশিয়ে দেওয়া হলো গরুর মাংস

0
69

মুসলিম হোটেলে খেতে যাওয়া হিন্দু তরুণীর খাবারে ইচ্ছাকৃতভাবে মিশিয়ে দেওয়া হলো গরুর মাংস। ঘটনা বাংলাদেশের বগুড়া শহরের অন্তর্গত রানা প্লাজার সবচেয়ে বড়ো রেস্টুরেন্ট সম্পাস ডাইনা-র।

জানা গিয়েছে, ওই হিন্দু তরুণীর নাম অনন্যা দাস। সে বগুড়া শহরের বাসিন্দা। গতকাল ওই রেস্টুরেন্টে গিয়ে চিংড়ির একটি পদের অর্ডার দেন। কয়েক গ্রাস মুখে তোলার পরেই ওই হিন্দু তরুণী বুঝতে পারেন যে চিংড়ির সঙ্গে গরুর মাংস মেশানো রয়েছে। জানার পরেই ঘৃণায় কয়েকবার বমি করেন ওই তরুণী। তারপরই রেস্টুরেন্টের কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। রেস্টুরেন্ট মালিক অবশ্য ক্ষমা চান। তবে ঘটনা এখানেই থেমে থাকেনি।

বিষয়টি কানে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতাদের। তাঁরা এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হন। যেভাবে একজন সংখ্যালঘু হিন্দুর ধর্ম বিশ্বাসে ইচ্ছাকৃতভাবে আঘাত দেওয়া হয়েছে, তাঁর তীব্র নিন্দা জানানো হয়। ঘটনায় ওই হোটেল মালিকের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন ওই তরুণী। যদিও এখনও পর্যন্ত তেমন কোনও খবর নেই।

উল্লেখ্য, মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র বাংলাদেশে হিন্দুরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। বিগত বেশ কিছু বছর ধরে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নেমে এসেছে ভয়াবহ অত্যাচার। ছলে-বলে-কৌশলে সংখ্যালঘু হিন্দুদের ইসলামে ধর্মান্তরণ করার বিশাল কর্মযজ্ঞ চলছে দেশটিতে। নানাভাবে ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত দেওয়ার চেষ্টাও চলতে থাকে। কিন্তু প্রশাসন দেখেও ব্যবস্থা নেয়না, অতীতে এমন অভিযোগ উঠেছে বারবার।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.