সন্দেশখালী: দা-বঁটি নিয়ে রুখে দাঁড়ালেন আদিবাসী মহিলারা, প্রাণ বাঁচাতে পালালো দুষ্কৃতীরা

0
61

রাজ্যজুড়ে রাজনৈতিক হিংসা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। বহু জায়গা থেকে আসা খবরে একটা বিষয় পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে যে রাজনৈতিক হিংসার আড়ালে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাট চালানো হচ্ছে। আতঙ্কিত মানুষজন বাড়িঘর ছেড়ে পালাচ্ছেন। কিন্তু কোথাও কোথাও মানুষজন না পালিয়ে প্রতিরোধের রাস্তা বেছে নিয়েছেন। কোচবিহার জেলার পর এমনই খবর এলো উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সন্দেশখালী থেকে।

জানা গিয়েছে, সন্দেশখালীর সেহেরা-রাধানগর গ্রাম পঞ্চায়েতের জয়হরি গ্রামটি আদিবাসী অধ্যুষিত। বেশ কয়েকদিন ধরেই আশেপাশের এলাকায় হামলা চালাচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। ভয়ে অনেক বাড়ির পুরুষরা এলাকা ছাড়া ছিলেন। এর আগে একবার ওই গ্রামে হামলা চালিয়ে ঘরদোর ভাঙচুর করেছে দুষ্কৃতীরা। গত বুধবার রাতে ওই গ্রামে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। প্রথম থেকেই নিজেদের ঘরবাড়ি বাঁচাতে প্রস্তুত ছিলেন গ্রামের মহিলারা। নিজেরা দা-বঁটি ও লাঠি নিয়ে সজাগ ছিলেন তাঁরা।

দুষ্কৃতী দল গ্রাম ঢুকতেই দল বেঁধে বেরিয়ে আসেন মহিলারা। দা-বঁটি ও লাঠি নিয়ে তাড়া করেন দুষ্কৃতীদের। মহিলাদের তেড়ে আসতে দেখে হকচকিয়ে যায় তাঁরা। পরে মহিলাদের রুদ্র মূর্তি দেখে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতী দল। তারপর থেকে ভয়ে ওই গ্রামে আর আসেনি দুষ্কৃতীরা। পরে ওই মহিলারা সমবেত ভাবে ন্যাজাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়েই সক্রিয় হয়েছে পুলিশ। গ্রামে এখন পুলিশের টহল চলছে নিয়ম করে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.