পাঞ্জাব: ক্যান্সার সারিয়ে দেওয়ার নাম করে হিন্দু পরিবারকে খ্রিষ্টান ধর্মে ধর্মান্তরণ, যাজকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

0
192

খ্রিস্টান ধর্ম গ্রহণ করলে এবং যীশুর নাম জপ করলে ক্যান্সার রোগ সেরে যাবে। খ্রিস্টান যাজকের মিথ্যা গল্পের ফাঁদে পা দিয়ে পুরো পরিবার ধর্মান্তরিত হলেন। শুধু তাই নয়, খ্রিস্টান যাজকের কথায় বিশ্বাস করে দিলেন ৮০,০০০(আশি হাজার টাকা) টাকা। পরে বুঝলেন তাঁরা প্রতারিত হয়েছেন, কারণ ক্যান্সার তো ভালোই হয়নি এবং তাদের সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। তখন থানায় দায়ের করলেন অভিযোগ। এমনই ঘটনা সামনে এসেছে পাঞ্জাবের জলন্ধর থেকে।

ছবি: ওই খ্রিস্টান যাজকের ফেসবুক পেজ

জানা গিয়েছে, জলন্ধরের ওই খ্রিস্টান যাজকের নাম বলবিন্দর সিং। হিলিং এবং যীশু প্রার্থনার মাধ্যমে রোগ সারিয়ে দিতে পারেন তিনি, এমনই পরিচিতি তাঁর স্থানীয় এলাকায়। এমনকি নিজের ফেসবুক পেজে যীশুর নাম করে একাধিক ব্যক্তির রোগ সারিয়ে দেওয়ার ভিডিও পোস্ট করেছেন।

শুভম পন্ডিত নামে এক হিন্দু ব্যক্তি তাঁর বোনের ক্যান্সার রোগ সারানোর জন্য ওই যাজকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁরা জলন্ধরের তাজপুরের চার্চে আসেন। শুভমের দাবি, প্রথমে ওই যাজক তাদের কাছে ১ লক্ষ টাকা দাবি করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি ৮০,০০০ টাকা দেন। তাদের পুরো পরিবারকে খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে বলা হয়। সেই মত তাঁরা খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হন।

তারপর তাদেরকে বলা হয় ১৫ দিনের মধ্যেই ক্যান্সার সারিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু শুভমের অভিযোগ, ওই খ্রিস্টান যাজক একটি বোতলে পবিত্র জল(Holy Water) এবং এর একটি বোতলে তেল দেন। দুবেলা সেই জল খাওয়ায় নির্দেশ দেন তিনি। কিন্তু ১০ দিনের মাথায় শুভমের বোন ক্যানসার রোগীর মৃত্যু হয়। তারপরেই ওই খ্রিস্টান যাজকের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন শুভম পন্ডিত।

এই ঘটনা ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পাঞ্জাবজুড়ে। এদিকে লামব্রা থানার SHO বিবৃতি দিয়ে অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। পাশপাশি ঘটনার তদন্ত চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.