আসাম: করিমগঞ্জের ২০০ বছরের প্রাচীন নরসিংহ মন্দিরে জিহাদি হানা

0
265

হিন্দু নির্যাতনের ঘটনা বেড়েই চলেছে আসামের বরাক উপত্যকায়। প্রায় প্রতি মাসেই বরাক উপত্যকার বিভিন্ন জেলায় হিন্দুদের ধর্মস্থানের ওপর হামলার ঘটনা ঘটছে। শুধু তাই নয়, হিন্দু নাবালিকা ও তরুণীদের ওপর হামলার ঘটনা বেড়েই চলেছে ক্রমাগত। এমনই এক ঘটনার খবর এলো করিমগঞ্জ থেকে।

জানা গিয়েছে, গত রাতে করিমগঞ্জের নিলামবাজারের বালিয়ায় অবস্থিত নরসিংহ মন্দিরে হানা দেয় একদল জিহাদি। তাদের সকলের হাতে ধারালো অস্ত্র ছিল। তাঁরা মন্দিরের পাশে থাকা পুরোহিতের হাত, পা বেঁধে ফেলে রাখে। তারপর মন্দিরের ভিতরে বিগ্রহের গায়ে থাকা সোনা ও রুপোর অলংকার খুলে নেয়। তারপর মন্দিরের প্রণামী বাক্স ভেঙে তার মধ্যে থাকা সমস্ত টাকা নিয়ে চলে যায়। যাওয়ার সময় ওই পুরোহিতকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি তাঁর কন্যাকে অপহরণ করার হুমকি দিয়ে যায় জিহাদিরা।

শুধু তাই নয়, জিহাদিরা মন্দিরের ভিতরে যথেষ্ট ভাঙচুর চালায়। মন্দিরের ভিতরে থাকা পূজার জিনিসপত্র তছনছ করে। তাদের মুখ ঢাকা থাকায় কাউকেই চিনতে পারেনি ওই মন্দিরের পুরোহিত।

এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়ার পরেই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে করিমগঞ্জ জেলাজুড়ে। কারণ নরসিংহ মন্দির অতি প্রাচীন মন্দির এবং আশেপাশের এলাকায় খুবই জাগ্রত মন্দির হিসেবে এটি পরিচিত। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। বিষেশ কুকুর নিয়ে এসে তদন্ত করা হলেও ঘটনার কিনারা এখনও করতে পারেনি পুলিশ। ফলে এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তারের কোনো খবর নেই।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.