সুনামগঞ্জে হিন্দুদের ওপর মৌলবাদী হামলার প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ সনাতনী সংঘের

0
310

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাংলাদেশ: সুনামগঞ্জ জেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংখ্যালঘুদের ঘর-বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে এবং দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে তরুন সনাতনী সংঘ(টি.এস.এস) কেন্দ্রীয় কমিটিসহ বিভিন্ন ধর্মীয় এবং সামাজিক সংগঠন।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা ক্ষোভের সাথে বলেন, “স্বাধীনতার ৫০তম বর্ষে এসেও স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি, অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশকে বার বার আঘাত হানছে। নিরপরাধ সংখ্যালঘু পরিবারগুলো বার বার নির্যাতিত হচ্ছে। অতীতে এদেশে রামু ও নাসির নগরের মতো সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এবার হলো সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও এর ঘটনা। কিন্তু এসব ঘটনায় জড়িত দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমুলক কোন শাস্তি হয় না, কখনোই। প্রশাসনের এমন নিষ্ক্রিয় আচরণের কারণেই এমন ঘটনা বার বার ঘটেছে। সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে প্রশাসন সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে”। এই ঘটনার জন্য শাল্লা উপজেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবি ওঠে বিক্ষোভ সমাবেশে।

বক্তারা আরও বলেন, কিছুদিন পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা হয়েছে, এমন সংবাদের ওপর ভিত্তি করে বেশ কয়েকবছর ধরে বার বার দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা করা হচ্ছে। শাল্লায় ক্ষতিগ্রস্ত সকল মুক্তিযোদ্ধা ও সংখ্যালঘু পরিবারগুলোকে সরকারের পক্ষ থেকে ঘরবাড়ি বানিয়ে দেওয়াসহ সকল প্রকার সহযোগিতারও দাবি জানান বক্তারা। যারা বিভিন্ন ধর্মীয় সমাবেশে সংখ্যালঘুদের গালিগালাজ করেন এবং হিন্দু সংখ্যালঘুদের নির্যাতনে উস্কানী দেওয়ার মতো বক্তব্য রাখেন, তাদেরকে বিচারের কাঠগড়ায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবি জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.