ইসলামে ধর্মান্তরিত অপরূপা পোদ্দার ওরফে আফরিন আলী কিভাবে SC সংরক্ষিত আসন থেকে সাংসদ হলেন?

0
6117

আরামবাগের তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দার ওরফে আফরিন আলীকে নিয়ে নতুন বিতর্ক। ইসলামে ধর্মান্তরিত হওয়ার পরেও কিভাবে তিনি SC-দের জন্য সংরক্ষিত আসন থেকে ভোটে দাঁড়ালেন এবং সাংসদ হলেন, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। উল্লেখ্য, ২০০৯ সাল থেকেই আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রটি SC-দের জন্য সংরক্ষিত। আর ২০১৪ সাল থেকেই এই আসনটিতে জিতে আসছেন আফরিন আলী ওরফে অপরূপা পোদ্দার।

এ প্রসঙ্গে একটি কথা উল্লেখ্য এই যে ১৯৫০ সালের সংবিধান সভার বিশেষ আদেশ অনুযায়ী, হিন্দু, শিখ ও জৈন সম্প্রদায়ের মানুষেরাই কেবলমাত্র SC স্ট্যাটাস পাবেন এবং এর সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। কিন্তু বিয়ের পর ইসলামে ধর্মান্তরিত হওয়ার পরেও খুব সুচতুরভাবে আফরিন আলী নামের সঙ্গে নিজের পূর্বের নাম অপরূপা পোদ্দার ব্যবহার করেছেন আরামবাগের সাংসদ এবং SC সম্প্রদায়ের প্রাপ্য সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন।

কিছু দিন আগেই রাজ্যসভায় এক প্রশ্নেই উত্তরে আইন মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ স্পষ্টই বলেছেন যে, যদি কোনো SC ভুক্ত ব্যক্তি ইসলাম কিংবা খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হন, তাহলে ওই ব্যক্তি SC সম্প্রদায়ের জন্য বরাদ্দ হওয়া সুযোগ-সুবিধা পাবেন না। এই প্রসঙ্গে আইন মন্ত্রী সংবিধানের কথাও উল্লেখ করেছিলেন এবং বলেছিলেন ‛Para 3 of the Constitution (Scheduled Castes) Order outlines that no person who professes a religion different from Hindu, Sikh or Buddhist religion shall be deemed to be a member of a scheduled caste.”

ইতিমধ্যেই আফরিন আলী ওরফে অপরূপা পোদ্দারের বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছে দিল্লীর একটি লিগ্যাল গ্রূপ। যারা মূলত SC-দের প্রাপ্য অধিকার সুনিশ্চিত করার কাজ করে থাকে। ওই সংগঠনটি জানিয়েছে যে আফরিন আলীর সাংসদ পদ বাতিলের দাবিতে তাঁরা আইনি লড়াইয়ে যাচ্ছে এবং কিভাবে একজন মুসলিম প্রার্থী SC-দের জন্য সংরক্ষিত আসন থেকে সাংসদ হলেন। যদিও, অপরূপা পোদ্দার এর আগেই দাবি করেছিলেন যে তিনি শুধু নাম পরিবর্তন করেছেন কিন্তু ধর্ম পরিবর্তন করেননি। বাস্তবে, তিনি মহম্মদ শাকির আলীকে বিয়ে করেছেন। আর ইসলামিক আইন অনুযায়ী, বিয়ের পূর্বে একজন অমুসলিম মহিলাকে ইসলামে ধর্মান্তরিত হতে হয় এবং তবেই ইসলাম অনুযায়ী সেই বিবাহ বৈধ হয়। ফলে আইনি লড়াইয়ে অপরূপা পোদ্দারের সাংসদ পদ বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.