ঝাড়খন্ড: রাস্তা আটকে নামাজ পড়ার ছবি ফেসবুকে শেয়ার করায় গ্রেপ্তার ৩

0
6369

মুসলিম সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে খুশি করতে আজব পদক্ষেপ নিলো ঝাড়খন্ড পুলিশ। রাস্তা আটকে নামাজ পড়ার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করায় তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ। পুলিশের দাবি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতেই ওই তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে রাস্তা আটকে নামাজ পড়া নাবালকদের বিরুদ্ধে কিংবা যে মসজিদ কমিটি ওই নাবালকদের রাস্তায় নামাজ পড়তে পাঠিয়েছিল, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্য কোনো ব্যবস্থা নেয়নি ঝাড়খন্ড পুলিশ।

জানা গিয়েছে, গত ১২ই মার্চ, শুক্রবার ঝাড়খণ্ডের হাজারীবাগের ইব্রাহিমি মসজিদের সামনে প্রধান রাস্তা আটকে নামাজ পড়তে শুরু করে কয়েকজন নাবালক ও শিশু। আর তার ফলে দুপাশে প্রচুর গাড়ি, বাস আটকে পড়ে। ফলে ওই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা দীর্ঘ সময় ধরে যানজটে পড়ে যায়। তাতে সাধারণ জনগনকে ব্যাপক সমস্যার মুখে পড়তে হয়। সেই ছবি কেউ একজন তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেন। মুহূর্তের মধ্যেই সেই ছবি ভাইরাল হয়ে যায়।

সেই ভাইরাল হওয়া ছবি দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটিজেনরা। তাঁরা এইভাবে রাস্তা আটকে নামাজ পড়ার তীব্র বিরোধিতা করার পাশাপাশি নিশানা করেন হাজারিবাগ প্রশাসনকে। মূলত, প্রশাসন যানজট নিরসনের কোনো পদক্ষেপ কেন নেয়নি, তা নিয়ে সমালোচনা করেন অনেকেই। সেই ছবি নজরে আসে পুলিশের। তাঁরা ওই মসজিদ কমিটির সঙ্গে আলোচনায় বসেন। ডেপুটি পুলিশ সুপার রাজীব কুমার বলেন, মসজিদ কমিটি কথা দিয়েছে যে ভবিষ্যতে রাস্তা আটকে নামাজ পড়া হবে না। কিন্তু ফেসবুকে শেয়ার করার ফলে ‛সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি’ নষ্ট হতে পারতো। তাই ওই ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.