বাংলাদেশিদের ভারতীয় পাসপোর্ট বানিয়ে বিদেশে পাঠানোর চক্রের পর্দাফাঁস, গ্রেপ্তার পুলিশ অফিসারসহ ৮

0
496

বাংলাদেশিদের প্রথমে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করানো হতো। তারপর তাঁরা সোজা গিয়ে পৌঁছে যেত হায়দরাবাদ। সেখানে থাকা চক্রের লোকজন তাদেরকে মোটা টাকার বিনিময়ে প্রথমে আধার কার্ড এবং আসল পাসপোর্ট বানিয়ে দিত। আর সেই পাসপোর্ট ব্যবহার করে তাদের আরবের একাধিক দেশে কাজে পাঠানো হতো। শেষমেশ সেই চক্রের পর্দাফাঁস করলো পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুই পুলিশ অফিসারসহ মোট ৮ জনকে। মূলত, আরব দেশে কাজ করতে চাওয়া বাংলাদেশিরা এই চক্রের সঙ্গে যোগাযোগ করতো। 

জানা গিয়েছে, ওই চক্রটির জাল ভারত ও বাংলাদেশ জুড়ে বিস্তৃত। প্রথমে পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করা বাংলাদেশিদের সোজা নিয়ে আসা হতো হায়দরাবাদে। সেখান থেকে তাদের নিয়ে যাওয়া হত নিজামাবাদে। সেখানে থাকা ওই চক্রের লোকজন তাদের আসল ভারতীয় আধার কার্ড, ভোটার কার্ড, প্যান কার্ড বানিয়ে দিত। তারপর স্থানীয় থানায় পুলিশ অফিসারের সহযোগিতায় তাদের পাসপোর্ট বানানো হত। তারপরই তাদের আরবের বিভিন্ন দেশে কাজে পাঠানো হতো। 

গত ২৪শে জানুয়ারি, বিমানবন্দরে দুবাইয়ের ফ্লাইট ধরতে তিনজন আসেন। তাদের পাসপোর্টে ঠিকানা হিসেবে নিজামাবাদের বোধন এলাকা লেখা ছিল। কিন্তু ওই তিনজন বাংলাদেশি উচ্চারণে বাংলা ভাষায় কথা বলছিল। তা দেখে সন্দেহ হয় ওই অফিসারের। তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই বেরিয়ে আসে আসল তথ্য। তাঁরা জানায় যে তাঁরা আদতে বাংলাদেশি। তারপরেই তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তদন্তে পুরো চক্রের পর্দাফাঁস করা হয়। এখনও পর্যন্ত এই চক্রের হাত ধরে ৭২ জন বাংলাদেশি আরবের বিভিন্ন দেশে গিয়েছে। 

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.