বাংলাদেশ: ময়মনসিংহে হিন্দু পরিবারের ওপর হামলা, অন্তঃসত্বা মহিলাসহ আহত ৬

0
456

বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর মৌলবাদীদের হামলা অব্যাহত। এবার অমানুষের দল একজন অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকেও রেহাই দিল না। উল্লেখ্য, গরুর বাছুরের ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে হিন্দু বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, অন্যান্য জিনিষপত্র সহ ৬টি গরু লুট, অমানবিক মারধর, গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি অন্তঃসত্ত্বা মহিলা সহ অন্তত ৬ জন!

ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা থানার ভালকী গ্রামে এক হিন্দু পরিবারের উপর এই বর্বর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এই হামলায় জড়িত ছিল একই গ্রামের জনৈক হাফেজ উদ্দিনের ৬ ছেলে। খবর পেয়ে স্থানীয় তারাকান্দা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রতিবেশীদের সহযোগীতায়  আহতদের দ্রুত ফুলপুর হাসপাতালে ভর্তি করেন এবং লুট হওয়া ৬ টি গরুর মধ্য ৫টি গরুও উদ্ধার করে দেন। 

জানা গিয়েছে, গত পরশু বিকেল ৫ টার দিকে ওই হিন্দু পরিবারের মাত্র দুই মাস বয়সী একটি গরুর বাছুর পাশ্ববর্তী হাফেজ উদ্দিনের জমিতে নেমে কয়েকগুচ্ছ ধান খেয়ে ফেলে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাফেজ উদ্দিনের ৬ ছেলে নজরুল, আজিমউদ্দিন,  মানিক সহ আরো ৩ ভাই সেই হিন্দু বাড়িতে গিয়ে অশ্রাব্য গালাগালি সহ বাড়ির জিনিষপত্র ভাঙচুর আরম্ভ করে! ফলে ওই হিন্দু পরিবারের সদস্যরা বাধা এবং প্রতিরোধ করার চেষ্টা করেন। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে এই ৬ ভাই  দেশীয় ধারালো অস্ত্র এবং লাঠিসোঁটা দিয়ে ঘরের পুরুষদের পাশাপাশি নারীদেরও মারধর করতে থাকে। এই হামলা থেকে নিস্তার পায়নি ওই বাড়ির নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা সুবর্ণা সেনও। এই ঘটনায় আহতরা হলেন,  রমণী সেন, উনার স্ত্রী নির্মলা সেন, ছেলে রঞ্জন সেন, ছেলের বউ, মেয়ে নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা সুবর্ণা সেন, আরেক ছেলে সঞ্জয় সেন। এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তারির কোনো খবর নেই।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.