নদীয়া: স্কুলের পাশে রাস্তা দখল করে মসজিদের নির্মাণ, জেলা শাসকের দ্বারস্থ স্থানীয়রা

0
2139

বালিকা বিদ্যালয়ের পাশেই সাধারণের চলাচলের রাস্তা দখল করে মসজিদ নির্মাণকে কেন্দ্র করে ক্ষোভ ছড়িয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই স্থানীয়রা এর প্রতিবাদে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করে জেলা শাসকের দ্বারস্থ হওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন। ঘটনা নদীয়া জেলার হরিণঘাটা পৌরসভা এলাকার। 

জানা গিয়েছে, হরিনঘাটা পৌরসভার ৩৪ নম্বর ন্যাশনাল হাইওয়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ জংশন হল বড় জাগুলী মোড় ,যেখান থেকে মাত্র ৫০০ মিটার অদূরে এলাকার অতি পরিচিত ও সুখ্যাত “রাজলক্ষ্মী কন্যা বিদ্যাপীঠ” নামে একটি মেয়েদের বিদ্যালয় রয়েছে। ওই বিদ্যালয়ের পাঁচিল ঘেঁষা পুরানো এক দরগায় এতোদিন দুই-চারজন  মুসলিমের যাতায়াত ছিল। স্থানীয় হিন্দু বাসিন্দাদের অভিযোগ, গত তিন দিন আগে হঠাৎ করেই হরিণঘাটা পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান রাজীব দালালের মদতে ঐখানে জাতীয় সড়কের ওপর মসজিদ নির্মাণ শুরু হয়েছে। আর এতেই ক্ষুব্ধ স্থানীয় হিন্দুরা। তাদের যুক্তি, হিন্দু প্রধান এলাকায় মসজিদ নির্মাণ হলে এলাকার শান্তি ও সম্প্রীতির পরিবেশ বিঘ্নিত হতে পারে। 

ছবি: স্থানীয়দের লেখা চিঠি

স্থানীয় হিন্দুরা জেলা শাসককে লেখা চিঠিতে যে বিষয়গুলি উল্লেখ করেছে, তা হলো- 
১) সম্পূর্ণ হিন্দু প্রধান বাজার ও বসতি অঞ্চলে মসজিদ নির্মাণ কতটা যুক্তিযুক্ত? ২) মাইক ও পাঁচ বার নামাজে বালিকা বিদ্যালয়ের পঠনপাঠন ভবিষ্যতে অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ২০১৭ সালের শান্তিপুর এর মালঞ্চ ইস্কুলের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না তো? ৩) ঐ ব্যস্ততম হাইওয়ের উপর শুক্রবারের জমায়েত কতটা ঝুঁকিপূর্ণ? 

আর এই কারণেই স্থানীয়দের দাবি, অবিলম্বে মসজিদ নির্মাণ বন্ধ করতে হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় বাসিন্দা জানিয়েছেন, আমরা ৫ হাজার মানুষের স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান শুরু করেছি। মসজিদ নির্মাণ বন্ধের দাবি জানিয়ে তা তুলে দেওয়া হবে জেলা শাসকের হাতে। 

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.