ব্রাহ্মণ কাকে বলবো?

0
236

© অমিত মালী

অজ্ঞাতবাসে থাকাকালীন সর্পরাজ নহুশের সঙ্গে দেখা হয় যুধিষ্ঠির এর। সেখানে নহুশ প্রশ্ন করলেন যুধিষ্ঠিরকে- মহারাজ, ব্রাহ্মণ কাকে বলব?- ব্রাহ্মণঃ কো ভবেদ রাজন। এর উত্তর তখনকার দিনে সমাজে যা প্রচলিত ছিল, এখনও তাই আছে- সোজা কথায় ব্রাহ্মণ-এর ছেলে হবে ব্রাহ্মণ। গলায় পৈতে, শাস্ত্রজ্ঞানী, নিজে শুদ্ধাচারে যতখানি থাকেন, শুদ্ধাচার শেখান আরো বেশি। 

সেই সময় ব্রাহ্মণদের ক্ষমতা ছিল বিশাল- এক হুঙ্কারে ক্ষত্রিয় রাজা মাথা ঝুঁকিয়ে দিত, নতজানু হতো বৈশ্য -শূদ্র। কিন্তু যুধিষ্ঠির এইসব উত্তরের ধার দিয়ে গেলেন না। তিনি যে উত্তর দিয়েছিলেন, তা বর্তমান দিনেও প্রযোজ্য।

যুধিষ্ঠির বললেন- সত্য, ক্ষমা, দান, সৎ চরিত্র, অহিংসা, কোমলতা, তপস্যা এবং দয়া- এই সমস্ত গুন যে মানুষটার মধ্যে থাকবে, তিনিই ব্রাহ্মণ -“দৃশ্যন্তে যত্র নাগেন্দ্র স ব্রাহ্মণঃ ইতি স্মৃত”। কিন্তু এই উত্তরে হতচকিত নহুশ পাল্টা প্রশ্ন করলেন যুধিষ্ঠিরকে- তুমি যদি এইরকম বলো যে, যার মধ্যে সত্য, দয়া, তপস্যা, ক্ষমা, সৎ চরিত্র এইসব গুন থাকবে, সে যদি ব্রাহ্মণ হয়; তাহলে সমাজের বৈশ্য, শূদ্র এদের মধ্যে যদি কোনো ব্যক্তির এইসব গুন থাকে,তাহলে এদেরও কি ব্রাহ্মণ বলতে হবে?

এর উত্তরে যুধিষ্ঠির বললেন হ্যাঁ, তাদেরকেও ব্রাহ্মণ বলতে হবে এবং ব্রাহ্মণ-এর মর্যাদা দিতে হবে-“এতে গুনাঃ যত্র ব্রাহ্মণ-সন্তানে ইতরত্র বা দৃশ্যন্তে স ব্রাহ্মণঃ”। ঠিক একই কথাই ‘ভগবদগীতা’ -তে ঈশ্বরের মুখ দিয়ে বলা হয়েছিল-আমি গুন ও কর্ম অনুসারে চতুর্বর্ণের সৃষ্টি করেছি-চতুর্বর্ণং ময়া সৃষ্টং গুন-কর্ম-বিভাগশঃ। যুধিষ্ঠির আরো বললেন যে, শূদ্রের মধ্যে যদি সত্য, তপস্যা, অহিংসার মতো ব্রাম্ভনের গুন থাকে, তাহলে তাকে ব্রাহ্মণ-ই বলতে হবে এবং তাকে তার প্রাপ্য মর্যাদা দিতে হবে। আর জন্ম-জাতিতে ব্রাহ্মণ হওয়া সত্বেও যদি কারওর মধ্যে ব্রাম্ভণের গুন-লক্ষণ না থাকে, তাহলে সে ব্রাহ্মণ নয়,-“ন বৈ শূদ্রো ভবেৎ শূদ্রো ব্রাহ্মণো ব্রাহ্মণোন চ”- তাকে শূদ্র বলতে হবে। 

মহারাজ যুধিষ্ঠির-এর এই অসামান্য অন্তর্দৃষ্টি সমাজের বর্ণভেদ প্রথাকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দেয়। সেই শিক্ষা অপনভোলা হিন্দুজাতি গ্রহণ করেনি কোনোদিন।এ খন সময় এসেছে গ্রহণ করার, নিজেদেরকে শুধরে নেবার।©অমিত মালী।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.