ফ্রান্স: নতুন বিল পাস, চিরতরে বন্ধ হবে বহু মসজিদ ও মাদ্রাসা

0
3883

ইসলামিক মৌলবাদ ও সন্ত্রাসবাদ বন্ধে কড়া পদক্ষেপ নিলো ফ্রান্স। ফ্রান্সের জাতীয় সংসদে পাস করা হলো নতুন বিল। আর এই বিল অনুযায়ী, ফ্রান্সের মাটিতে চলা বহু মসজিদ, মাদ্রাসা চিরতরে বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

গতকাল ১৬ই ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার সংসদে এই নতুন বিল পাস হয়। পাস হওয়া নতুন বিলে ফ্রান্সের মাটিতে ক্রমবর্ধমান ইসলামিক মৌলবাদ ও সন্ত্রাসবাদ রুখতে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রথমত, দেশের যেসব মসজিদ থেকে ইসলামিক কট্টরপন্থী মতবাদ প্রচার করা হচ্ছে, তা চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

দ্বিতীয়ত, যে সব মুসলিম পিতা-মাতা তাদের সন্তানকে সরকারি স্কুলে না পড়িয়ে ধর্মীয় শিক্ষার জন্য মাদ্রাসায় পাঠান, তাঁরা আর তা করতে পারবেন না। সন্তানকে সরকারি বিদ্যালয়ে পাঠাতে হবে।

তৃতীয়ত, দেশের সমস্ত মাদ্রাসা চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

চতুর্থত, যেসব মসজিদ বিদেশি অনুদান পায়, যেমন- কাতার, সৌদি আরব এবং তুরস্ক থেকে; তাদেরকে সরকারি দপ্তরে রেজিস্ট্রি করাতে হবে। এমনকি সমস্ত খরচের হিসাব, অনুদানের হিসাব সরকারকে দিতে হবে।

পঞ্চমত, প্রতি বছর বিভিন্ন ইসলামিক দেশ থেকে প্রচুর মাওলানা, হুজুর, ইমাম ইসলাম ধর্ম প্রচারের জন্য ফ্রান্সে আসেন। নতুন বিল অনুযায়ী সরকারের নজরে রাখা হবে তাদের এবং সরকারি ছাড়পত্র ছাড়া তাঁরা ফ্রান্সে ঢুকতে পারবেন না।

এছাড়াও, মসজিদের লাউডস্পিকার ব্যবহারে অনুমতি, মসজিদের ইমামদের বিশেষ সার্টিফিকেট নেওয়া থেকেও শুরু করে একাধিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার কথা বলা হয়েছে নতুন বিলে।

প্রসঙ্গত, ফ্রান্সে বর্তমানে মুসলিম জনসংখ্যা প্রায় ৫০ লক্ষ। এর পূর্বে একাধিক ইসলামিক সন্ত্রাসবাদী হামলায় রক্তাক্ত হয়েছে ফ্রান্সের মাটি। শার্লি হেবদো, শিক্ষক খুনের ঘটনায় ক্ষুব্ধ ফ্রান্সের আম জনতা। ফলে ইসলামিক মৌলবাদ দমনে কড়া পদক্ষেপ নিতে চাপ বাড়ছিল সরকারের ওপর। কারণ বিরোধী নেত্রী ডানপন্থী মারিন লা পেনের উত্থান। আর তাতেই ইসলামিক মৌলবাদ দমনে কড়া পদক্ষেপ নিলো ফ্রান্স।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.