উত্তর প্রদেশ: আধার কার্ড ও পাসপোর্টসহ গ্রেপ্তার রোহিঙ্গা মুসলিম অনুপ্রবেশকারী

0
981

গতকাল এক বিশেষ অভিযান চালিয়ে এক রোহিঙ্গা মুসলিম অনুপ্রবেশকারীকে সন্ত কবীর নগরের খলীলাবাদ বস্তি থেকে গ্রেপ্তার করলো উত্তর প্রদেশ এটিএস(ATS)। ওই ব্যক্তির নাম আজিজুল হক। সে গত ২০০১ সালে ভারতে আসে এবং পরে নকল আধার কার্ড, রেশন কার্ড, প্যান কার্ড এবং পাসপোর্টও বানিয়ে নেয়।

জানা গিয়েছে, আজিজুল হক ২০০১ সালে বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করে। পরে নিজের আধার কার্ড, রেশন কার্ড, প্যান কার্ড এবং পাসপোর্ট বানায়। তারপর সেই পাসপোর্ট দেখিয়ে একাধিকবার সৌদি আরব এবং বাংলাদেশ গিয়েছে সে। পরে ২০১৭ সালে সে তাঁর মা আবিদা খাতুন, বোন ফাতিমা খাতুন এবং দুই ভাই মহম্মদ নূর ও জিয়া উল হককে ভারতে নিয়ে আসে। তাদেরও একইভাবে ভারতের রেশন, প্যান, আধার কার্ড বানায় সে। তাঁরা খলীলাবাদ বস্তিতেই থাকতো। তাঁর দুই ভাই বর্তমানে মহারাষ্ট্রে রয়েছে। সেখানেও তাকে গ্রেপ্তার করতে এটিএস-এর একটি দল মহারাষ্ট্রে গিয়েছে।

গত ২৯শে আগস্ট গোরখপুরের একটি সাইবার ক্যাফেতে হানা দিয়ে হার্ড ডিস্ক বাজেয়াপ্ত করা হয়। সৌদি আরব, বাংলাদেশ এবং উত্তর প্রদেশের বিভিন্ন ব্যক্তির ব্যাংক একাউন্টে সন্দেহজনক লেনদেনের হদিস পায় এটিএসের গোয়েন্দারা। তাঁরা তদন্ত করে দেখেন যে, আজিজুল হক নামে এক ব্যক্তির কাছে।সৌদি আরব থেকে প্রচুর পরিমান টাকা এসেছে। তারপরেই সাইবার ক্যাফের মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করে উত্তর প্রদেশে রোহিঙ্গা মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের ব্যাপারে নিশ্চিত হন গোয়েন্দারা। তারপরেই অভিযান চালায় এটিএস। আর তাতেই গ্রেপ্তার করা হয় আজিজুল হককে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.