মুক্তিযুদ্ধ অর্থহীন, পূর্ব পাকিস্তান হওয়ার পথে বাংলাদেশ

1
1031

© অমিত মালী

আজ নাকি বিজয় দিবস! কিন্তু কার বিজয়? কি লাভ হলো হিন্দুদের? ভারতের ট্যাক্সের টাকা খরচ করে বাংলাদেশকে স্বাধীন করে কি লাভ হলো ভারতের? যদিও এটা অস্বীকার করা যায় না, যে মুক্তিযুদ্ধে অনেক বাংলাদেশি(তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান) লড়াইতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, প্রাণ দিয়েছিলেন। কিন্তু একটা জাতি হিসেবে মিলে মিশে থাকার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করার পরেও যখন সারা দেশজুড়ে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন দেখেও চুপ থাকে যারা, তাদেরকে একটুও লজ্জা হয় না?

ভারত মুক্তিযুদ্ধে সেনা পাঠিয়েছিল মানবতার খাতিরে। দেশের মানুষদের রক্ষা করার পাশপাশি মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া, অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করা, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করা, ধর্ষিতা মহিলাদের সহযোগিতায় চিকিৎসক পাঠানো, দেশ হিসেবে সর্বপ্রথম স্বীকৃতি দেওয়া সবই করেছিল। সেই যুদ্ধে ভারতের ৪,৫০০ সেনার মৃত্যু হয়েছিল। কিন্তু তাঁর বদলে কি পেলো ভারত? জাল নোট পাচার, অস্ত্র পাচার, জামাত জঙ্গি, হুজি জঙ্গি, অনুপ্রবেশ আর JMB জঙ্গি?

বাংলাদেশ তথা পূর্ব পাকিস্তানে হিন্দু সংখ্যালঘু হওয়া সত্বেও মুক্তিযুদ্ধে তাদের উল্লেখযোগ্য অবদান ছিল। এমনকি, তথ্য অনুযায়ী, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন বাংলাদেশের ইসলামিক মৌলবাদী জনতা বেছে বেছে হিন্দুদের টার্গেট করেছিল। ফলে মুখে মুক্তিযুদ্ধ বলা হলেও হিন্দুদের নিশ্চিহ্ন করাই ছিল উদ্দেশ্য। তথ্য অনুযায়ী, ১৯৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ লোকের মৃত্যু হয়েছিল। তার মধ্যে ২৫ লক্ষ ছিল হিন্দু। কত হিন্দু নারী ধর্ষিতা হয়েছিল, তাঁর কোনো হিসেব নেই।

সেই ট্র্যাডিশন আজও চলছে। আজ খান সেনা না থাকলেও, তাদের রক্ত যাদের শরীরে বইছে, তাদের আজ রমরমা সারা বাংলাদেশ জুড়ে। নির্বিচারে খুন, ধর্ষণ, হিন্দু নারী অপহরন, মন্দিরে হামলা, মূর্তি ভাঙচুর নিত্যদিনের ঘটনা। ফলে মনে হয়, সারা বাংলদেশে যেন খান সেনা, আল বদর আর আল শামস-এর দৌরাত্ম্য চলছে। ফলে দেশটি বাইরে থেকে বাংলাদেশ হলেও ভিতরে শিরায় শিরায় তাঁর বইছে পাকিস্তানের রক্ত, খান সেনাদের রক্ত, আল বদরের রক্ত, রাজাকারের উল্লাস। তাঁরা চায়, দেশটা আবার পূর্ব পাকিস্তান হোক। সে রাষ্ট্র আজ আবার পাকিস্তানের উল্লাসে এগিয়ে চলেছে সংখ্যালঘু নিধনে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর প্রেরণা বুড়িগঙ্গা দিয়ে ভেসে গিয়েছে অনেক আগেই। সেদিন আর বেশি দূরে নেই, যেদিন পশ্চিম পাকিস্তানের(বর্তমান পাকিস্তান) মতো পূর্ব পাকিস্তান(বর্তমান বাংলাদেশ) হিন্দু শূন্য দেশে পরিণত হবে। ফলে এমন দেশের মুক্তিযুদ্ধ, বিজয় দিবস নিয়ে গর্ব করার কিছু নেই। ফলে বাংলাদেশ, জাতির পিতা, মুক্তিযুদ্ধ, বিজয় দিবসের ভণ্ডামি না করে নাম বদলে পূর্ব পাকিস্তান হোক।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.

1 COMMENT

Comments are closed.