দিল্লী দাঙ্গার জন্য হিন্দুরা দায়ী, রিপোর্ট প্রকাশ সিপিআইএমের

0
3251

বামপন্থীদের বিশেষ করে সিপিআইএম-এর হিন্দু বিরোধী অবস্থান আর একবার প্রমাণিত হলো। দিল্লী দাঙ্গার জন্য হিন্দুরা দায়ী, এমনই রিপোর্ট প্রকাশ করলো সিপিআইএম-এর এক বিশেষ কমিটি। এমনকি রিপোর্টে এও বলা হয়েছে যে, হিন্দু দাঙ্গাবাজরা নিরীহ মুসলিমদের ওপর আক্রমণ করেছে। মুসলিমরা শুধু নিজেদের আত্মরক্ষা ও প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করেছে। পাশাপাশি, দিল্লীর দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণ না করতে পারায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে সেই রিপোর্টে।

দিল্লীর দাঙ্গার পরে পুরো পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করে সিপিআইএম পলিটব্যুরো। সেই কমিটি গতকাল ৯ই ডিসেম্বর, বুধবার তাঁর রিপোর্ট পেশ করেছে। সেই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে যে হিন্দুরা নিরীহ মুসলিমদের ওপর আক্রমণ করেছে। পাশপাশি, সেই রিপোর্টে দিল্লীর ঘটনাকে দাঙ্গা বলা হয়নি। কারণ হিসেবে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে যে দাঙ্গায় দুপক্ষের তরফে হামলা ও পাল্টা হামলা হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে হিন্দুত্ববাদীরা নিরীহ মুসলিমদের ওপর আক্রমণ করেছে। পাশপাশি তদন্তকারীরা দিল্লী দাঙ্গার পিছনে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া(PFI) এবং ইসলামিক মৌলবাদীদের সক্রিয় ভূমিকাকে চেপে দেওয়ার চেষ্টা করেছে। ল্লেখযোগ্যভাবে, হিন্দুদের নৃশংস হত্যা এবং হিন্দুদের বাড়িগাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা সম্পূর্ণভাবে এড়িয়ে গিয়েছে সিপিআইএম-এর প্রকাশিত রিপোর্ট।

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভয়ঙ্কর হিন্দু বিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। এবং সেই দাঙ্গার বীজ বপন করা হয়েছিল CAA বিরোধী আন্দোলন এবং শাহীনবাগের বিক্ষোভস্থল থেকেই। তারপরেই উত্তর-পূর্ব দিল্লীর বিস্তীর্ণ অংশে ভয়ঙ্কর দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। সেই দাঙ্গায় মৃত্যু হয় দিল্লী পুলিশের কনস্টেবল রতন লাল এবং ইন্টেলিজেন্স অফিসার অঙ্কিত শর্মা। বহু হিন্দুর গাড়ি-বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়। পরে তদন্তে ইসলামিক মৌলবাদীদের ষড়যন্ত্র সামনে আসে। গ্রেপ্তার করা হয় আম আদমি পার্টির কাউন্সিলার তাহির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। কিন্তু তারপরেও দাঙ্গার জন্য যেভাবে হিন্দুদের দায়ী করা হয়েছে, তাতে সিপিআইএম-এর হিন্দু বিরোধী চরিত্র এবং তোষণনীতি স্পষ্ট।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.