গুজরাট: খ্রিস্টান মিশনারী অধ্যুষিত ডাং জেলার গ্রামে প্রথম মন্দিরের নির্মাণ

0
371

গুজরাটের খ্রিস্টান মিশনারী অধ্যুষিত জেলার নাম ডাং। এই জেলার প্রায় প্রতিটি গ্রামে রয়েছে খ্রিস্টান মিশনারিদের দাপট। প্রায় প্রতিটি গ্রামে রয়েছে একের বেশি চার্চ। আর তাঁর প্রভাবে ওই জেলার বেশিরভাগ আদিবাসী মানুষ খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছেন মিশনারীদের প্রলোভনে পড়ে। তাঁরা চার্চে যেতেন, গসপেল পড়তেন এবং যীশু ভগবানের গান গাইতেন। কিন্তু ‛অগ্নিবীর’ -এর উদ্যোগে তাঁরা ফিরে এসেছেন হিন্দু ধর্মে। কিন্তু গ্রামে কোনো মন্দির না থাকায় সমস্যায় পড়ছিলেন তাঁরা। দরিদ্র মানুষগুলির সামর্থ্য ছিল না মন্দির তৈরি করার। আর সে সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এলো অগ্নিবীর।

অগ্নিবীর গ্রামে একটি শ্রী হনুমান মন্দিরের নির্মাণ করেছে। করা হয়েছে নিত্য পূজা-পাঠের ব্যবস্থা। ফলে গ্রামে ধর্মের পুনর্জাগরণ ঘটেছে। গ্রামবাসীরা রোজ আসছেন মন্দিরে। নিত্যদিন চলছে পূজা-পাঠ এবং ভজন-কীর্তন। তা দেখে চার্চে যাওয়া বহু মানুষ আসতে শুরু করেছেন মন্দিরে। ফলে আগামীদিনে আরও বহু গ্রামবাসী হিন্দু ধর্মে ফিরবেন, তা সহজেই অনুমেয়। সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে আগামী দিনে তাঁরা আরও বহু মানুষকে নিজের ধর্মের শেকড়ে ফেরাবেন, যাদেরকে খ্রিস্টান মিশনারীরা এক বস্তা চাল কিংবা এক প্যাকেট বিস্কুট দিয়ে ধর্মান্তরিত করা হয়েছিল।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here