মৃত্যু হল লাভ জিহাদের শিকার অঞ্জনা ওরফে আয়েশার

0
733

লখনৌ বিধানসভার সামনে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করা তরুণীর মৃত্যু হলো হাসপাতালে। গত ১৩ই অক্টোবর বিধানসভা ভবনের গেটের সামনে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন অঞ্জনা তিওয়ারি ওরফে আয়েশা। উপস্থিত পুলিশকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে লখনৌ সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন তাকে। গতকাল তাঁর মৃত্যু হল।

ওই তরুণীর অভিযোগ ছিল যে শশুরবাড়িতে তাঁর ওপর লাগাতার অত্যাচার করা হয়। সেই অভিযোগ জানিয়ে ওই মহিলা উত্তর প্রদেশের DIG-কে চিঠিও লিখেছিলেন। সূত্রের খবর, অঞ্জনা তিওয়ারি নামে ওই মহিলা চিঠিতে লিখেছিলেন যে, সে ও তাঁর বোন এক ফ্যাক্টরিতে কাজ করতেন। সেখানে আসিফ তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের শাস্তি থেকে বাঁচার জন্য পরে অঞ্জনাকে বিয়ে করে আসিফ। বিয়ের পরে চাপ দিয়ে অঞ্জনাকে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত করা হয়। তাঁর নাম হয় আয়েশা। তারপর সৌদি আরবে কাজ করতে চলে যান আসিফ। কিন্তু বাড়িতে লাগাতার নির্যাতন ও অত্যাচারের শিকার হতে হয় তাকে। এমনকি বাড়ি থেকেও বের করে দেওয়া হয় অঞ্জনা ওরফে আয়েশাকে। এদিকে টাকা পাঠানো বন্ধ করে দেন আসিফ। ওই তরুণী বুঝতে পারেন যে, তাঁর সঙ্গে প্রতারণা ও অন্যায় করা হয়েছে। তাঁর বিহিত চেয়ে উত্তর প্রদেশের DIG-কে চিঠি লেখেন ওই মহিলা। কিন্তু কোনো উত্তর না আসায় আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন অঞ্জনা ওরফে আয়েশা। শেষমেশ হাসপাতালে মৃত্যু হল ওই তরুণীর।

তবে তাঁর মৃত্যুর পর নড়েচড়ে বসেছে পুলিস। পুলিস অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অত্যাচার, জোর করে ধর্মান্তরণসহ একাধিক অভিযোগে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here