মন্দির খুলে দেওয়ার দাবিতে সারা মহারাষ্ট্রজুড়ে বিক্ষোভ হিন্দুদের

0
236

আনলক-এর তৃতীয় পর্ব চলছে সারা দেশে। স্কুল ও লোকাল ট্রেন বাদে খুলে গিয়েছে দোকানপাট, শপিং মল ও বাজার। লোকে ভিড় করে কেনাকাটা করছেন। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে জনজীবন। কিন্তু সব কিছু খুলে গেলেও মহারাষ্ট্রে বন্ধ রয়েছে সমস্ত হিন্দু মন্দির। ফলে হিন্দুরা মন্দিরে দর্শন, আরতি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। আর তা ঘিরে ক্ষোভ দানা বাঁধছিলো হিন্দুদের মধ্যে। এবার সেই ক্ষোভ ফেটে পড়লো সারা মহারাষ্ট্রজুড়ে। প্রচুর হিন্দুরা ধর্ম পালনের অধিকারের দাবিতে বিক্ষোভ ও আন্দোলনে সামিল হলেন। তাদের দাবি, হিন্দু মন্দির খুলে দিতে হবে সরকারকে। সামাজিক দুরত্ববিধি ও সতর্কতা বজায় রেখেই মন্দিরে ভক্তদের যেতে দেওয়া হোক।

তবে সাধারণ হিন্দুদের এই আন্দোলনে বিজেপি এবং মহারাষ্ট্রের সাধু সমাজ পাশে দাঁড়ানোয় গতি পেয়েছে এই আন্দোলন। ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে চিঠি লিখে মন্দির খুলে দেওয়ার কথা বলেছেন। কিন্তু তাতেও ক কোনো সাড়া মেলেনি। ফলে তুমুল বিক্ষোভ ও চাপানজউতোর চলছে মহারাষ্ট্রে। প্রচুর হিন্দু জনতা সিরিডি সাঁইবাবা মন্দির ও সিদ্ধিবিনায়ক মন্দিরের সামনে বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন। অনেকে জোর করে সিদ্ধিবিনায়ক মন্দিরে ঢুকতে চেষ্টা করে, তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিস। পাশাপাশি বিক্ষোভ-প্রতিবাদে সামিল হওয়ায় একাধিক বিজেপির নেতা ও কর্মীকে আটক করে পুলিস। একাধিক সাধু-সন্তদের কথায় হিন্দুদের ধর্মীয় অধিকার থেকে বঞ্চিত করে মুসলিম তোষণের ঘৃণ্য রাজনীতি করছেন উদ্ধব ঠাকরে।

We are not big media organisation. Your support is what keeps us moving. Don't hesitate to contribute because, work, for society needs society's support. Jai Hind.